আন্তর্জাতিক অর্গানাইজার উপাধি পেলেন দিপু

আন্তর্জাতিক জাতীয় দেশজুড়ে বিশ্ব দাবা

বিশ্ব দাবার সর্বোচ্চ সংস্থা ফিদে যেমন দাবাড়ুদের পারফরম্যান্সের উপর ভিত্তি করে তাদের অর্জিত রেটিং বা নর্ম অর্জন অনুযায়ী ক্যান্ডিডেটমাস্টার, ফিদেমাস্টার, আন্তর্জাতিকমাস্টার ও গ্র্যান্ডমাস্টার খেতাব বা উপাধি দিয়ে থাকে।

ঠিক তেমনি যারা দাবা খেলাটির আয়োজন করেন বা যারা সংগঠক রয়েছেন তাদের কর্মকাণ্ডের মূল্যায়নের উপর ভিত্তি করে আন্তর্জাতিক অর্গানাইজার উপাধি দেওয়া হয়।

এই উপাধি পেতে হলে অবশ্য ফিদের কিছু রুলস ফলো করার পাশাপাশি সংগঠকদের দাবাভিত্তিক নানান প্রশ্নের লিখিত পরীক্ষা দিতে হয়। সেই পরীক্ষায় কৃতকার্য হলেই কেবল আন্তর্জাতিক অর্গানাইজার উপাধি পাওয়া যায়।

ঘরোয়া দাবায় এবার সবশেষ সেই আন্তর্জাতিক অর্গানাইজার উপাধি পেলেন দাবা অন্ত:প্রাণ ব্যক্তি, যার পদচারণা দেশজুড়ে সেই বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের যুগ্মসম্পাদক মাসুদুর রহমান মল্লিক দিপু।

এর আগে এই আন্তর্জাতিক অর্গানাইজার খেতাব লাভ করেছিলেন নারী ক্যান্ডিডেটমাস্টার মাহমুদা হক চৌধুরী মলি। যিনি নারী দাবা সংগঠকদের মধ্যে উপমহাদেশের প্রথম নারী হিসেবে আন্তর্জাতিক অর্গানাইজার উপাধি পেয়েছিলেন।

বাংলাদেশী দাবা সংগঠকদের মধ্যে প্রথম আন্তর্জাতিক অর্গানাইজার উপাধি লাভ করেন মাহমুদা হক চৌধুরী মলি। এরপর লন্ডন প্রবাসী টিটো খান, সৈয়দ শাহাবউদ্দিন শামীম ও মাসুদুর রহমান মল্লিক দিপু

এর পর বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও বিশ্ব দাবা সংস্থা এশিয়ান ৩.২ জোন সভাপতি সৈয়দ শাহাবউদ্দিন শামীম আন্তর্জাতিক অর্গানাইজার উপাধি লাভ করেন।

তবে বাংলাদেশীদের মধ্যে লন্ডন প্রবাসী দাবাড়ু ও দাবা সংগঠক টিটো খান আন্তর্জাতিক অর্গানাইজার উপাধি পেয়েছেন।

সে অর্থে বাংলাদেশী সংগঠকদের মধ্যে মাহমুদা হক চৌধুরী মলি প্রথম, টিটো খান দ্বিতীয়, সৈয়দ শাহাবউদ্দিন শামীম তৃতীয় ও মাসুদুর রহমান মল্লিক দিপু চতুর্থ বাংলাদেশী হিসেবে আন্তর্জাতিক অর্গানাইজার উপাধি পেলেন।