নিজস্ব প্রতিবেদক
চেসবিডি.কম
ঢাকা : ১৮ এপ্রিল ২০২১

করোনাজয়ী এক লড়াকু দাবাড়ু’র নাম মো. আসাদুজ্জামান। যিনি দু’দফায় প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জয়ী হয়েছেন। তিনি শুধু একজন দাবাড়ুই নন। একজন আন্তর্জাতিক রেটেড খেলোয়াড়ও বটে। একই সঙ্গে তিনি একজন অন্ত:প্রাণ দাবা সংগঠক।

তবে মো. আসাদুজ্জামান একাধিক আঙিনায় নানান নামে পরিচিতি। দাবার বাইরে তিনি একজন ভাল টেবিল টেনিস খেলোয়াড়। চলতি মৌসুমে তিনি ঢাকা মহানগরী প্রথম বিভাগ টেবিল টেনিস লিগে বাংলাদেশ পুলিশ দলের হয়ে খেলেছেন। তিনি একজন দক্ষ টেনিস খেলোয়াড়। শুধু তাই নয়, বর্তমান সময়ের তিনি একজন আধুনিক কবি।

ব্যক্তিগত জীবনে মো. আসাদুজ্জামান একজন দায়িত্বশীল পুলিশ কর্মকর্তা। বর্তমানে সিআইডি’র সহকারী পুলিশ সুপার। গুরুদায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সময় পেলেই তিনি কবিতা লেখায় মেতে উঠেন। দাবা বোর্ডে খেলতে বসে পড়েন। ছুটে চলেন জিমে নয়তো টেনিস কিংবা টেবিল টেনিস খেলতেও।

গত বছর যখন বৈশ্বিক এ করোনা মহামারী বিশ্বব্যাপী প্রকোপভাবে ছড়িয়ে পড়েছিল ঠিক তখন শুরুর দিকেই মো. আসাদুজ্জামান করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। সেসময় তিনি চিকিৎসকের পরামর্শে বাসায় আইসোলেশনে থেকে অল্পসময়ের মধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন।

কিন্তু দ্বিতীয় দফায় এবার মার্চ মাসে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। শুরুতে বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। তবে কিছুটা শারীরিক জটিলতা দেখা দেয়ায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল। সেখানে ২২ দিন কাটিয়ে করোনা নেগেটিভ হয়ে বাসায় ফেরেন।

বর্তমানে মো. আসাদুজ্জামান করোনা নেগেটিভ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাসায় ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। শনিবার রাতে তিনি চেসবিডি.কম_কে মুঠোফোনে বলেন, ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছি ইনশাআল্লাহ। বেশ ভাল অনুভব করছি। তবে শারীরিক দুর্বলতা এখনো রয়ে গেছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, আমার কাছে গত বছরের চেয়ে এবার করোনাকে আরো বেশি শক্তিশালী মনে হচ্ছে। তা আমি আক্রান্ত হবার পর থেকেই টের পেয়েছি।

মো. আসাদুজ্জামান বলেন, এ মুহূর্তে যতটা ‘সচেতন’ আর ‘সর্তক’ থাকা যায় সেই চেষ্টাই সবাইকে করতে হবে। তিনি জানান, ভয় নয়, সাহস আর আত্ববিশ্বাস নিয়েই আমাদেরকে করোনার মোকাবিলা করে জয়ী হতে হবে। অপ্রয়োজনে ঘরের বাইরে কাউকে না যাবার অনুরোধ জানিয়েছেন।

চেসবিডি.কম/এমএ