শিরিন অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন; রানারআপ নোশিন

আন্তর্জাতিক জাতীয় দেশজুড়ে

বেগম লায়লা আলম ১২তম ফিদে আন্তর্জাতিক নারী দাবা প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ আনসারের নারী আন্তর্জাতিকমাস্টার শারমিন সুলতানা শিরিন অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন ও বাংলাদেশ নৌবাহিনীর নারী ফিদেমাস্টার নোশিন আঞ্জুম রানারআপ হয়েছেন।

শিরিন ও নোশিন উভয়ে ৭ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট করলে টাইব্রেকিং পদ্ধতির মাধ্যমে শিরিন শিরোপা জয় করেন ও নোশিন রানারআপ হন।

এদিকে ৫.৫ পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশ আনসারের নারী আন্তর্জাতিকমাস্টার রানী হামিদ তৃতীয়স্থান লাভ করেন।

অপরদিকে ৫ পয়েন্ট সংগ্রহ করে ৫ জন টাইব্রেকিং পদ্ধতিতে বাংলাদেশ পুলিশের নুশরাত জাহান আলো চতুর্থ, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ওয়াদিফা আহমেদ পঞ্চম, অগ্রণী ব্যাংক দাবা দলের নারী ফিদেমাস্টার জাকিয়া সুলতানা ষষ্ঠ, বাংলাদেশ পুলিশের ইশরাত জাহান দিবা সপ্তম ও রূপালী ব্যাংক ক্রীড়া পরিষদের নীলাভা চৌধুরী অষ্টম হয়েছেন।

তবে ৪.৫ পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশ পুলিশের নারী ফিদেমাস্টার নাজরানা খান ইভা নবম ও ওয়ারসিয়া খুশবু দশম হয়েছেন।

ক্যাটাগরিভিত্তিক অনূর্ধ্ব-১০ বিভাগে আরিশা হোসেন তুবা, সেরা ননরেটেড বিভাগে ওয়ারসিয়া হায়দার সারাহ এবং উর্ধ্ব-১০ ও অনূর্ধ্ব-১৪ পুরস্কার পান পলি খাতুন।

১১ মে বুধবার বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের ক্রীড়া কক্ষে সপ্তম বা শেষ রাউন্ডে নারী আন্তর্জাতিকমাস্টার শিরিন আলোর সাথে ড্র করেন।

তবে নারী ফিদেমাস্টার নোশিন নারী আন্তর্জাতিকমাস্টার রানী হামিদকে, দিবা ওমনিয়া বিনতে ইউসুফ লুুবাবাকে, ওয়াদিফা ইসাবা মাসনুনকে, নারী ফিদেমাস্টার জাকিয়া নুশরাত জাহান লিজাকে, নীলাভা তাসনিয়া তারান্নুম অর্পাকে, নারী ফিদেমাস্টার ইভা আফরীন জাহান মুনিয়াকে, কাজী জারিন তাসনিম সুমী আক্তারকে ও খুশবু তাবাসসুম সাদিয়া শাহজাহানকে পরাজিত করেন।

খেলা শেষে বেগম লায়লা আলম প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও বিশ্ব দাবা সংস্থা জোন-৩.২ এর প্রেসিডেন্ট সৈয়দ শাহাবউদ্দিন শামীম, নারী আন্তর্জাতিকমাস্টার রানী হামিদ, বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের কার্যনির্বাহী সদস্য আন্তর্জাতিক অর্গানাইজার মাহমুদা হক চৌধুরী মলি, ওয়াজির আলম ও ওয়াকি আলম।

উল্লেখ্য ৭ রাউন্ড সুইস লিগ পদ্ধতিতে এ প্রতিযোগিতায় মোট ৪৮ জন খেলোয়াড় অংশগ্রহণ করেন। বিজয়ীদের মধ্যে নগদ আশি হাজার টাকা অর্থ পুরস্কার, ট্রফি, মেডেল ও সনদপত্র দেয়া হয়।