বঙ্গবন্ধু প্রিমিয়ার ডিভিশন দাবা লিগে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন

জাতীয়

বঙ্গবন্ধু প্রিমিয়ার ডিভিশন দাবা লিগে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব ১০ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট পেয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। শিরোপাজয়ী দলের খেলোয়াড়রা হলেন গ্র্যান্ডমাস্টার এনামুল হোসেন রাজীব, আন্তর্জাতিকমাস্টার মোহাম্মদ ফাহাদ রহমান, ভারতীয় গ্র্যান্ডমাস্টার এসএল নারায়ানান, ইরানের গ্র্যান্ডমাস্টার ইদানি পোওয়া ও ফিদেমাস্টার সুব্রত বিশ্বাস।

এদিকে গত তিনবারের চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ পুলিশ ১৬ পয়েন্ট নিয়ে রানার্সআপ হয়েছে। এ দলটির হয়ে খেলেছেন ক্যান্ডিডেটমাস্টার মনন রেজা নীড়, গ্র্যান্ডমাস্টার জিয়াউর রহমান, ভারতীয় গ্র্যান্ডমাস্টার সন্দিপন চান্দা, ক্যান্ডিডেটমাস্টার সাকলাইন মোস্তফা সাজিদ, ভারতীয় গ্র্যান্ডমাস্টার হার্ষা ভারতকোটি ও ফিদেমাস্টার মেহেদী হাসান পরাগ।

অপরদিকে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক ১৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থান লাভ করে। তাদের হয়ে লিগে অংশগ্রহণ করেন গ্র্যান্ডমাস্টার নিয়াজ মোরশেদ, শফিক আহমেদ, জর্জিয়ার গ্র্যান্ডমাস্টার পেন্টসুলিয়া লিভান, রাশিয়ান গ্র্যান্ডমাস্টার রাখমানভ আলেকজান্ডার, ফিদেমাস্টার তাহসিন তাজওয়ার জিয়া ও মো. আনিচুজ্জামান জুয়েল।

তবে ১৪ পয়েন্ট সংগ্রহ করায় স্থান নির্ধারণে গেম পয়েন্টের মাধ্যমে ম্যানহা’স ক্যাসেল ২৬.৫ গেম পয়েন্ট পেয়ে চতুর্থ ও বাংলাদেশ বিমান ২৫.৫ গেম পয়েন্টে পেয়ে পঞ্চম হয়েছে।

এছাড়া লিওনাইন চেস ক্লাব ১০ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ হয়। তিতাস ক্লাব ৯ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম, উত্তরা সেন্ট্রাল চেস ক্লাব ৬ পয়েন্ট নিয়ে অষ্টম, শেখ রাসেল চেস ক্লাব ৪ পয়েন্ট নিয়ে নবম, রুপালী ব্যাংক ক্রীড়া পরিষদ ২ পয়েন্ট দশম এবং সুলতানা কামাল স্মৃতি সংসদ ১ পয়েন্ট নিয়ে একাদশ স্থান পায়।

বোর্ড পুরস্কার পেয়েছেন প্রথম বোর্ডে সাইফ স্পোর্টি ক্লাবের গ্র্যান্ডমাস্টার এনামুল হোসেন রাজীব, দ্বিতীয় বোর্ডে ম্যানহা’স ক্যাসেলে গ্র্যান্ডমাস্টার মেনডোনকা লিওন লুকে, তৃতীয় বোর্ডে বাংলাদেশ বিমানের গ্র্যান্ডমাস্টার দীপ্তায়ন ঘোষ, চতুর্থ বোর্ডে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের গ্র্যান্ডমাস্টার রাখমানভ আলেকজান্ডার, অতিরিক্ত ১- বাংলাদেশ পুলিশের গ্র্যান্ডমাস্টার হার্ষা ভারতকোটি এবং অতিরিক্ত ২- লিওনাইন চেস ক্লাবের আসিফ মাহমুদ।

উল্লেখ্য লিগের সবশেষ অবস্থান পাওয়া সুলতানা কামাল স্মৃতি পাঠাগার এবং লিগে অংশ না নেয়ায় শাহিন চেস ক্লাব প্রথম বিভাগের নেমে গেছে।

খেলা শেষে ১০ ডিসেম্বর বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের সহসভাপতি কেএম শহিদউল্যা, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শাহাবউদ্দিন শামীম ও যুগ্মসম্পাদক ও বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি ড. শোয়েব রিয়াজ আলম বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন।